সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১১ রবিউস সানি , ১৪৪১ | ০৯:৩২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বৃহস্পতিবারের হরতালে বিএনপির সমর্থন      আগামী জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত গ্রহণের সময় এখনো আসেনি বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার বেগম কবিতা খানম       ফার্মগেট এলাকায় শুরু হয়েছে মেট্রোরেলের কাজ       রাজশাহীর জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের অভিযানে নিহত ৩      তোরাব আলী খালাস, কারাগারে পিন্টুর মৃত্যু      ফারমার্স ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদ ছাড়লেন মখা আলমগীর      চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাবের অভিযান, নিহত ২       চাঁপাইনবাবগঞ্জে চরে ‘জঙ্গি আস্তানায়’ বিস্ফোরণ      আগামীকাল স্থায়ী কমিটির বৈঠক ডেকেছেন খালেদা জিয়া       স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৩য় ম্যাচে জিততে হলে বাংলাদেশকে করতে হবে ৩৭০     

X
বুধবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৯ ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

সাংবাদিক আমানুল্লাহ কবির আর নেই

img

প্রবীণ সাংবাদিক আমানুল্লাহ কবীর আর নেই। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর।

গতকাল মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ১টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে তার জীবনাবসান ঘটে।

আমানুল্লাহ কবীর শেষ সময়ে অনলাইনভিত্তিক সংবাদপত্র বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের জ্যেষ্ঠ সম্পাদক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

আমানুল্লাহ কবীরের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তিনি বেশ কিছুদিন ধরেই ডায়াবেটিস ও লিভারের জটিলতায় ভুগছিলেন। অসুস্থতা নিয়ে দুই সপ্তাহ আগে শ্যামলীর ঢাকা সেন্ট্রাল ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ধানমণ্ডির ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে তাকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হয়।

১৯৪৭ সালের ২৪ জানুয়ারি জামালপুরে জন্মগ্রহণ করেন আমানুল্লাহ কবীর। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে বাংলা ও ইংরেজি দুই ভাষার সংবাদপত্রেই তিনি কাজ করেছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৮ সালে মাস্টার্স করা আমানুল্লাহ কবীর এক সময় ছিলেন ইংরেজি দৈনিক নিউ নেশনের বার্তা কক্ষের প্রধান। নিউ নেশন তখন দেশের অন্যতম প্রধান সংবাদপত্র।

আশির দশকে এস এম আলীর সম্পাদনায় ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টার প্রকাশিত হলে তার প্রথম বার্তা সম্পাদক ছিলেন আমানুল্লাহ কবীর।

১৯৯১ সালের শেষ দিকে নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে ইংরেজি দৈনিক টেলিগ্রাফে যোগ দেন তিনি। বেক্সিমকোর মালিকানায় দৈনিক ইনডিপেনডেন্টের প্রতিষ্ঠাকালীন নির্বাহী সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেন আমানুল্লাহ কবীর।

পরে বিএনপি সরকারের সময়ে রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ মাধ্যম বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ও প্রধান সম্পাদকের দায়িত্ব পান তিনি।

আমানুল্লাহ কবীরের সম্পাদনায় ২০০৪ সালে প্রকাশিত হয় বাংলা দৈনিক আমার দেশ। সে সময় পত্রিকাটির মালিক ছিলেন বিএনপির মোসাদ্দেক আলী ফালু।

প্রায় পাঁচ দশকের পেশা জীবনের শেষ সময়ে, শেষ পাঁচটি বছর আমানুল্লাহ কবীর ছিলেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে।

অবিভক্ত ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি পদের পাশাপাশি ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

আমানুল্লাহ কবীরের লাশ আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় নেয়া হবে জাতীয় প্রেস ক্লাবে। সেখানে জানাজা শেষে কফিন নিয়ে যাওয়া হবে জামালপুরে তার গ্রামের বাড়িতে। সেখানেই তাকে দাফন করা হবে।

আরো খবর